বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮, ০৯:০২ অপরাহ্ন

শ্রীবরদীতে সরকারী ভাবে বোরো ধান সংগ্রহ না করায় বঞ্চিত চাষীরা চাতাল না চললেও চাল ঢুকছে গুদামে

শ্রীবরদীতে সরকারী ভাবে বোরো ধান সংগ্রহ না করায় বঞ্চিত চাষীরা চাতাল না চললেও চাল ঢুকছে গুদামে

ফরিদ আহম্মেদ রুবেল, শ্রীবরদী :

শ্রীবরদী উপজেলার সরকারি খাদ্য গোদাম জাকজমক পূর্ণভাবে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রণ বিভাগের উদ্যোগে বোরো সংগ্রহ অভিযানের শুভ উদ্বোধন করা হলেও অদ্যাবধি চলতি মৌসুমের বোরো ধান সংগ্রহ শুরু হয়নি। আবার চাল সংগ্রহ শুরু হলেও সে অনুযায়ী চাতাল চলছে না। ফলে সরবরাহকৃত এসব চাল নিয়েও জনমনে দেখা দিয়েছে বিভ্রান্তি।
সূত্র জানায়, চলতি বোরো মৌসুমে শ্রীবরদী উপজেলায় ৩২ টাকা কেজি দরে ৪ হাজার ২শ ২৫ মেট্টিকটন চাল ও ২২ টাকা কেজি দরে ৩শ ৫৪ মেট্টিকটন ধান সংগ্রহ করা হবে।
সরেজমিনে দেখা যায়, ব্যাপক হারে বোরো চাল সংগ্রহ করা হচ্ছে কিন্তু বোরো ধান সংগ্রহ করা হচ্ছে না। মণপ্রতি উৎপাদন ব্যয়ের চেয়ে বর্তমানে ধানের বাজার মূল্য কম থাকায় গুদমেও দিতে না পারায় ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছেন প্রান্তিক কৃষকরা।
ভোক্তভোগীরা জানান, চলতি মৌসুমে বোরো ধান সংগ্রহের বিষয়ে আমাদের কোন ভাবেই অবহিত করা হয়নি। ধান সংগ্রহের বিষয়ে আমরা কিছুই জানি না।
এদিকে চলতি মৌসুমে ব্যাপক হারে সরকারী ভাবে চাল সংগ্রহ অভিযান শুরু হলেও এ এলাকায় উল্লেখযোগ্য সংখ্যক চাতাল চালু অবস্থায় দেখা যাচ্ছে না। তবে মিল মালিকরা এত চাল কোথা থেকে গুদামে সরবরাহ করছেন- এ প্রশ্ন দেখা দিয়েছে জনমনে।
এ ব্যাপারে শ্রীবরদী খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, গুদামের জায়গা সংকুলান না হওয়ায় বোরো ধান সংগ্রহ করা হচ্ছে না।
উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক জিয়া উদ্দিন খান বলেন, কৃষকরা ধান ভালো ভাবে শুকাতে পারে না এবং বিভিন্ন সমস্যার কারণে আপাতত ধান সংগ্রহ করা হচ্ছে না। তবে কোনো কৃষক ধান নিয়ে আসলে তার ধান দেখা হবে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাবিবা শারমিন বলেন, চলতি বোরো মৌসুমে ধান সংগ্রহ হচ্ছে কি না আমার জানা নেই। তবে চাউল সংগ্রহ করা হচ্ছে। ধান সংগ্রহের নিয়ম-নীতি দেখে আমি ব্যবস্থা নিব।


© All rights reserved © 2017 BanglarKagoj.Net
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com