বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮, ০৮:৫২ অপরাহ্ন

ঝিনাইগাতীতে রাস্তা নেই, আছে ব্রিজ : ১০ গ্রামের মানুষের যাতায়াতের মাধ্যম নৌকা

ঝিনাইগাতীতে রাস্তা নেই, আছে ব্রিজ : ১০ গ্রামের মানুষের যাতায়াতের মাধ্যম নৌকা

Gozarmari

ঝিনাইগাতী (শেরপুর) প্রতিনিধি
শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার মাটিয়াপাড়া সিএনবি রোড থেকে সারিকালিনগর, গজারমারী হয়ে বাগেরভিটা বাজার পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কার ও পাকাকরণের অভাবে ১০ গ্রামের মানুষের যাতায়াতের মাধ্যম এখন নৌকা। প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় গ্রামবাসীর। নৌকায় পারাপার হতে গিয়ে চরম দূর্ভোগের শিকার হতে হয় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ কৃষকদের। গ্রামগুলো হচ্ছে- মাটিয়াপাড়া, সারিকালিনগর, বালুরচর, কালিনগর, নয়াপাড়া, দাড়িয়ারপাড়, কান্দুলী, কুচনিপাড়া, বাড়েরভিটা ও কোনাগাঁও। এসব গ্রামের কৃষকসহ গ্রামবাসী এ রাস্তায় যাতায়াত করে থাকে।
দেশ স্বাধীনের পর গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে এ রাস্তাটি সংস্কার ও পাকাকরণের দাবী উঠেছে বহুবার। বিভিন্ন সময় জনপ্রতিনিধিদের কাছ থেকে রাস্তা নির্মাণের জন্য আশ্বাসও পাওয়া গেছে। কিন্তু আজও তা বাস্তবায়িত হয়নি। রাস্তাটি সংস্কার ও পাকাকরণের অভাবে শুষ্ক মৌসুম যেমন-তেমন প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে সামান্য বৃষ্টি এবং পাহাড়ি ঢলের পানিতে রাস্তাটি তলিয়ে যায়। আর গ্রামবাসীর রাস্তা পারাপারে দূর্ভোগের সীমা থাকে না।
গত ক’দিনের অবিরাম বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানিতে এখন গ্রামের শতশত লোকের পারাপারের একমাত্র মাধ্যম হয়ে দাড়িয়েছে নৌকা।
উল্লেখ্য, রাস্তাটি সংস্কার ও পাকাকরণ করা না হলেও ২০০৪ সালে এ রাস্তার গজারমারীতে এলজিইডি’র ১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়েছে ব্রীজ। রাস্তা নির্মাণ না করেই ব্রীজ নির্মাণ করায় শুষ্ক মৌসুমেও ব্রীজটি গ্রামবাসীর দূর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। গ্রামবাসীর মতে, রাস্তা সংস্কার ও পাকাকরণ করা হলে এসব এলাকায় কৃষিক্ষেত্রে উন্নয়নের পাশাপাশি উত্তরাঞ্চলের কয়েকটি জেলার সাথে এ উপজেলা যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হবে।


© All rights reserved © 2017 BanglarKagoj.Net
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com