বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮, ০৮:৫৬ অপরাহ্ন

কুড়িগ্রামে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের পর হত্যা, পালানোকালে ধর্ষকের মুত্যু

কুড়িগ্রামে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের পর হত্যা, পালানোকালে ধর্ষকের মুত্যু

RAPE-picupload-e1421064913802

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি :

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে এক স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের পর জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার পর পালিয়ে যাওয়ার সময় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া (হার্ডএটাক) বন্ধ হয়ে মারা যান বখাটে প্রেমিক আইয়ুব আলী (২২) নামে এক ধর্ষক। আজ রবিবার দুপুর ১২টার দিকে নিহত স্কুলছাত্রীর বাড়িতে বর্বরোচিত এই ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ একজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

পুলিশ ও গ্রামবাসি সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বোয়ালমারী গ্রামের মৃত আব্দুল হাই আকন্দের কন্যা নিহত আর্জিনা খাতুন। আজ রবিবার দুপুরে স্কুলছাত্রী আর্জিনা খাতুন ছাড়া বাড়িতে কেউ ছিল না। সে এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় পাশ করেছে। এদিন দুপুর ১২টার দিকে একই উপজেলার চেংটাপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল বাতেনের পুত্র বখাটে প্রেমিক আয়ুইব আলী তার বন্ধুদের সঙ্গে নিয়ে আর্জিনার বাড়ির রান্না ঘরে অবস্থান করে। এক পর্যায়ে তাকে রান্না ঘরে নিয়ে প্রথমে ধর্ষণ এবং পরে গলা কেটে হত্যা করা হয়।

তাকে হত্যা করে পালিয়ে যাওয়ার সময় আয়ুইব আলী হার্ডএটাকে মারা যায়। অন্য দুজনকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে। গ্রামবাসি সূত্রে আরো জানা যায়,  বখাটে আয়ুইব জোর করেই আর্জিনা খাতুনের সঙ্গে প্রেম করতে চেয়েছিল। কিন্তু আর্জিনা খাতুনের অন্য স্থানে বিয়ের দিন-তারিখ ঠিক হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে সে। আর এ কারণে গণধর্ষণের পর  আর্জিনাকে হত্যা করা হয়েছে বলে গ্রামের মানুষের মাঝে গুঞ্জন চলছে।

এ ব্যাপারে নিহতের মা সাজেদা বেগম অভিযোগ করে বলেন, ওই আয়ুইব আলী মেলা দিন থিকা আমার মাইয়াকে বিরক্ত করে আসছিল। আর এ কারণে মাইয়ার বিয়া দিবার চাইছিলাম। কিন্তু শয়তানরা তাকে বাঁচতে দিল না। আমি খুনীদের ফাঁসি চাই। যাতে আমার মাইয়ার আত্মা শান্তি পায়।

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে রৌমারী থানার ওসি সোহরাব হোসেন বলেন, এই নির্মম হত্যাকাণ্ডে সরাসরি তিনজন ছিল বলে আমরা আশঙ্কা করছি। ধর্ষণ হয়েছে কিনা তা বলতে পারব না। তবে যারা ওই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তাদের ছাড় দেওয়া হবে না। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে নাসির উদ্দিন (২২) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ওসি সোহরাব হোসেন জানান, রৌমারী থানা পুলিশ জবাই করা স্কুলছাত্রী ও বখাটে প্রেমিকের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে। আয়ুইব আলীর মারা যাওয়া প্রসঙ্গে তিনি জানান, জবাই করার পরে ভয়ে তার মৃত্যু ঘটেছে। এটাই ধারণা করছি।


© All rights reserved © 2017 BanglarKagoj.Net
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com